০৩.০৪.১৯: বায়ুমানে কিছুটা উন্নতি

বাংলাদেশের ৮টি জেলার বাতাসের মান নিয়মিত পরিমাপ করে থাকে বাংলাদেশ পরিবেশ অধিদফতর। সেই ডেটা নিয়ে এই প্রতিবেদন।

গত ২৯ বছর ধরে গ্রহণযোগ্য মাত্রার চেয়ে বেশি দূষিত বাতাসে শ্বাস নিচ্ছে বাংলাদেশের মানুষ,  বিশ্ব বায়ু প্রতিবেদন ২০১৮-তে এ কথা বলা হচ্ছে।

একই প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, বায়ুদূষণজনিত মৃত্যুর সংখ্যায় ২০১৭ সালে বিশ্বে ৫ম স্থানে (১,২৩,০০০) ছিল বাংলাদেশ।

সেই বাংলাদেশেও একেকদিন আগের কম বায়ুদূষণ হয়। যেমন ৩রা এপ্রিল।

আগের দিনের তুলনায় বুধবার দেশে বায়ুমানের কিছুটা উন্নতি হয়েছে। অর্থাৎ মঙ্গলরের তুলনায় বুধবার বায়ুদূষণ কিছুটা কমেছে।

ঢাকা ও চট্টগ্রামে মঙ্গলবার বায়ুমান ছিল ‘অস্বাস্থ্যকর’, তবে বুধবার তা কিছুটা ভালো হয়ে পৌঁছায় যথাক্রমে ‘সতর্কতা’ ও ‘সহনীয়’ পর্যায়ে।

গাজীপুরে বুধবার বাতাস ছিল ‘সহনীয়’ পর্যায় কিন্তু আগের দিনে তা ছিল ‘সতর্কতা’ পর্যায়।

বুধবার রাজশাহীর বাতাস ছিল ‘ভাল’। তবে অল্প কিছুটা অবনতি হয় সিলেটের বায়ুমান। মঙ্গলবার সিলেটের বায়ুমান ‘ভাল’ থাকলেও বুধবার তা নেমে আসে ‘সহনীয়’ পর্যায়ে।

খুলনা ও বরিশালে বায়ুমান ছিল আগের দিনের সাথে অপরিবর্তিত।