ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জানাযার পরদিন বাসায় কোয়ারেন্টিনে ৩০ হাজার মানুষ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে এক জানাযায় হাজার হাজার মানুষের সমাবেশ ১৮ এপ্রিল। সেই ঘটনার পর লকডাউন করা হয় আশেপাশের আটটি গ্রাম।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে সারাদেশ যখন ছুটিতে অবরুদ্ধ সেই সময়ে এই সমাবেশ স্বাভাবিকভাবেই সবার মাঝে আশঙ্কা ছড়িয়েছে।

এই ঘটনার পর বড় উল্লম্ফন ঘটেছে বাসায় কোয়ারেন্টিনে পাঠানো জনসংখ্যাতেও। ঘটনার পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় দেশজুড়ে হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠানো মানুষের সংখ্যা ছিল ৩০,০০০।

ডেটা : স্বাস্থ্য অধিদফতর

গত ২০ এপ্রিল স্বাস্থ্য অধিদফতরের প্রকাশ করা ডেটায় দেখা যায়, ১৯ এপ্রিল সকাল ৮টা থেকে ২০ এপ্রিল সকাল ৮টা পর্যন্ত ওই সংখ্যক মানুষকে কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়।

দেশে গত ৮ মার্চ করোনাভাইরাস সংক্রমণের পর থেকে ডেটা পর্যালোচনা করে দেখা যায়, সাধারণত দিনে চার থেকে পাঁচ হাজার মানুষকে বাসায় কোয়ারেন্টিনে রাখা হচ্ছিল।

অবশ্য এর মধ্যে ১৫ এপ্রিল স্বাভাবিকের তুলনায় দ্বিগুণ মানুষকে বাসায় কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছিল।

ঢাকায় আপনার এলাকায় আক্রান্তের সংখ্যা জানতে ক্লিক করুন